| |

৬৮তম আন্তর্জাতিক বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসব : পরতে পরতে ‘মি টু’র রেশ

জমে উঠেছে বার্লিনালে। বিশ্বের অন্যতম সম্মানজনক এই চলচ্চিত্র উৎসবের ৬৮তম আসরে বিশ্বসেরা নির্মাতা ও শিল্পী-কুশলীরা এক হয়েছেন। তবে এ বছরের বড় বড় পুরস্কার আসরের মতো এই উৎসবেও চলচ্চিত্রের চেয়ে বেশি প্রাধান্য পাচ্ছে যৌন হয়রানিবিরোধী কর্মসূচি। উৎসবের পরতে পরতে জড়িয়ে গেছে হ্যাশট্যাগ ‘মি টু’ কর্মসূচির রেশ।

ড্যামসেল ছবির উদ্বোধনী প্রদর্শনীতে ব্রিটিশ অভিনেতা রবার্ট প্যাটিনসন ও অস্ট্রেলিয়ান অভিনেত্রী মিয়া ওয়াসিকোওস্কা।গত অক্টোবরে হলিউড প্রযোজক হার্ভি ওয়াইনস্টিনের যৌন হয়রানির কাণ্ড ফাঁস হওয়ার পর থেকে চলচ্চিত্র ও সংগীত দুনিয়ায় রীতিমতো ঝড় ওঠে। বিনোদন মাধ্যমের সঙ্গে জড়িত শিল্পী ও কলাকুশলীরা নিজেদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া হয়রানির কথা প্রকাশ করতে শুরু করেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সেই অভিজ্ঞতার কথা প্রকাশ করে তাতে অনেকে জুড়ে দেন হ্যাশট্যাগ ‘মি টু’। সেই ‘মি টু’ হ্যাশট্যাগ এ বছর গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার ও গ্র্যামিতেও আধিপত্য বিস্তার করেছিল। ১৫ ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়া ৬৮তম আন্তর্জাতিক বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবেও এর ব্যতিক্রম হয়নি। উৎসবের উদ্বোধনী ছবি আইসেল অব ডগস-এর প্রদর্শনী থেকে শুরু হয়ে প্রতিটি সংবাদ সম্মেলন ও প্রদর্শনীতে ঘুরেফিরে এসেছে কর্মক্ষেত্রে নারীর ওপর যৌন হয়রানির বিষয়টি। সর্বশেষ আলোচনায় এল কোরিয়ান নির্মাতা কিম কি দুকের মন্তব্য। শুরু থেকেই এই নির্মাতার অংশগ্রহণের কারণে বার্লিনাল নিয়ে বিতর্ক উঠেছিল। কিন্তু গত শনিবার কিম কি দুক তাঁর ছবি হিউম্যান, স্পেস, টাইম অ্যান্ড হিউম্যান-এর সংবাদ সম্মেলনে সব বিতর্ক ও প্রশ্নের জবাব দিলেন।

সূত্র: প্রথম আলো