| |

বিয়ে না করায় যুবককে প্রকাশ্যে জুতাপেটা

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়েও একটি মেয়েকে বিয়ে না করায় প্রকাশ্যেই জুতাপেটা খেলেন এক যুবক। ভারতের পুণের বাসিন্দা শ্রীকান্ত লোন্ধে নামে ওই যুবকের সঙ্গে দীর্ঘদিন সম্পর্ক ছিল একটি মেয়ের। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে সহবাস করেও মেয়েটিকে বিয়ে করতে চায়নি শ্রীকান্ত।

ওই মেয়েটি পুরো ঘটনাটি জানান নারী অধিকার কর্মী ও ‘ভূমাতা রনরাঙ্গিনি ব্রিগেড’-এর প্রতিষ্ঠাতা ত্রুপ্তি দেশাইকে। এরপর গতকাল বুধবার পুণে থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে পুণে-আহমেদনগর জাতীয় সড়কের ওপর প্রকাশ্যেই নিজের পায়ের জুতো খুলে তাঁকে পেটায় মিস দেশাই। মারধরের ঘটনায় রাস্তায় লোক জমে যায়। শুধু তাই নয়, দীর্ঘদিন সম্পর্ক রাখার পর ওই যুবক কেন নারীটিকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেছে সে বিষয়েও তার কাছে জবাবদিহি করেন ত্রুপ্তি দেশাই।

শ্রীকান্ত ক্রমাগত একটি মেয়েকে শারীরিকভাবে শোষণ করে আসছিল বলে অভিযোগ করেছেন ত্রুপ্তি দেশাই। তাঁর দাবি ক্রমাগত সহবাসের ফলে ওই মেয়েটি গর্ভবতী হয়ে পড়ে এবং মেয়েটি যদি গর্ভপাত করায় তাহলেই শ্রীকান্ত তাকে বিয়ে করবে বলে প্রতিশ্রুতি দেয়।

নারী অধিকার কর্মী দেশাই জানান, ‘ওই ছেলেটি আরও দু’জন নারীর সঙ্গে একই প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভঙ্গ করায় আমরা ওই ছেলেটিকে একটা উচিত শিক্ষা দিয়েছি। আইন নিজের হাতে তুলে না নেওয়া ছাড়া আমার হাতে আর কোন উপায় ছিল না। কারণ নির্যাতিতা ওই মেয়েটি পুলিশের কাছে গেলেও কোন বিচার পায়নি’।

জাতীয় সড়কের ওপর প্রকাশ্যে জুতা পেটার সেই ছবি ইন্টারনেটে আসতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। বিশ্বম্বর চৌধুরী নামে অন্য এক সমাজকর্মী ত্রুপ্তি দেশাইয়ের এই কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে বলেছেন, ‘একজন সমাজকর্মী হয়ে তিনি (দেশাই) যদি আইন নিজের হাতে তুলে নেন এবং বিচার শুরু করেন তবে তারা এক বিপজ্জনক পরিস্থিতি তৈরি করতে চাইছেন’।