| |

লেদারটেক বাংলাদেশ এর চতুর্থ আসর শুরু হচ্ছে ৩ নভেম্বর

স্টাফ রিপোর্টারঃ বাংলাদেশের চামড়া ও চামড়াজাত শিল্পের আধুনিকায়ন এবং উন্নয়নে আগামী ৩ নভেম্বর ২০১৬ থেকে শুরু হচ্ছে চামড়া শিল্পের সবচেয়ে বড় ট্রেড শো ‘লেদারটেক বাংলাদেশ ২০১৬’। রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) চতুর্থবারের মত আয়োজিত তিনদিনব্যাপী এ ট্রেড শো’তে বাংলাদেশের চামড়া, চামড়াজাত পণ্য এবং ফুটওয়্যাার শিল্পের জন্য প্রয়োজনীয় মেশিনারি, কম্পোনেন্ট, ক্যামিকেল এবং অ্যাকসেসরিজসংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক এবং স্থানীয় প্রযুক্তি তুলে ধরা হবে।

(৩১ অক্টোবর, ২০১৬) রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে আয়োজক সংস্থা আস্ক ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন্স প্রাইভেট লিমিটেড জানায় আইসিসিবি’র ৩, ৪ এবং ৫ নম্বর হলে আয়োজিত আন্তর্জাতিক এ প্রদর্শণীতে বাংলাদেশসহ মোট ১৫ টি দেশ অংশগ্রহণ করবে।  আগের আসরগুলোর ধারাবাহিকতায় এবারের প্রদর্শণীতে বাংলাদেশ, ভারত , চীন, কোরিয়া, তুরস্ক, মিশর, ভিয়েতনাম, যুক্তরাজ্য, শ্রীলঙ্কা, ইতালি, জার্মানি, সিঙ্গাপুর, জাপান, তাইওয়ান এবং হংকং’এর মোট ২৫০ টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করবে। প্রতিষ্ঠানগুলো ট্যানিং লেদার, ম্যানুফ্যাকচারিং ফুটওয়্যার, চামড়াজাত পণ্যসহ এর সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তি উপস্থাপন করবে। অংশগ্রহণকারী প্যাভিলিয়নগুলোর একটি বড় অংশজুড়ে থাকবে ভারত ও চীনের বিভিন্ন কোম্পানি।

সংবাদ সম্মেলনে আস্ক ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন্স প্রাইভেট লিমিটেডের পরিচালক নন্দ গোপাল কে বলেন, “বর্তমানে দেশের চামড়া শিল্প অত্যন্ত সম্ভাবনাময় একটি জায়গায় অবস্থান করছে যা থেকে আগামী কয়েক বছরের মধ্যেই বাংলাদেশের চামড়া শিল্প থেকে রপ্তানি আয় দাড়াবে ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এ শিল্প তৈরি পোশাক শিল্পের পরের স্থানটি দখল করার জন্য সার্বিকভাবে প্রস্তুত রয়েছে। আর এই লক্ষ্য অর্জনের ফলে একদিকে যেমন আমাদের সামনে অনেক বড় সুযোগ তৈরি করবে, একই সাথে আমাদের জন্য এটি একটি চ্যালেঞ্জও।”

তিনি বলেন, “এ পরিপ্রেক্ষিতে চামড়া শিল্প সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তি, কম্পোনেন্ট এবং এ্যাকসেসরিজের ভুমিকা কোনোভাবেই অস্বীকার করা যাবে না। ‘লেদারটেক বাংলাদেশ ২০১৬’ এ বিশ্বের ১৫ টি দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের সর্বাধুনিক উদ্ভাবন এবং সেবা নিয়ে উপস্থিত হবে যা থেকে স্থানীয় চামড়া শিল্প তার প্রয়োজনীয় প্রযুক্তির মাধ্যমে উপকৃত হবে।”

আয়োজনের প্রধান পৃষ্ঠপোষকতা করছে লেদারগুডস অ্যান্ড ফুটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারারস অ্যান্ড এক্সপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (LFMEAB)। আর কৌশলগত অংশীদার সেন্টার অব এক্সিল্যান্স ফর লেদার স্কিল বাংলাদেশ লিমিটেড (COEL)।

এছাড়া অন্যান্য পৃষ্ঠপোষকদের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ ফিনিশড লেদার, লেদার গুডস অ্যান্ড ফুটওয়্যার এক্সপোর্টার অ্যাসোসিয়েশন (BFLLFEA), বাংলাদেশ টেনারস অ্যাসোসিয়েশন (BTA), বাংলাদেশ পাদুকা প্রস্তুতকারক সমিতি (BPPS), কাউন্সিল ফর লেদার এক্সপোর্টস (CLE) এবং ইন্ডিয়ান ফট্ওুয়্যার কম্পোনেন্টস ম্যানুফ্যাকচারারস অ্যাসোসিয়েশন (IFCOMA)’।

প্রতিদিন বেলা ১১ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত এ প্রদর্শণীটি ৫ নভেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত চলবে।